বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৮ °সে আপডেট : ১৫ এপ্রিল, ২০২২
ব্রেকিং নিউজ
  •   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর সবুজ চত্বরে দেখা স্বপ্ন- সাতগ্রামবাসীর সেবার সুযোগ চান জোবায়ের
  •   অবশেষে অস্ট্রেলিয়ার হাতে ট্রফি
  •   আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ন্ত্রণ করবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স: শিক্ষামন্ত্রী
  •   তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষকেরা প্রথম শ্রেনীর মানুষ তৈরি করে
  •   বিশ্বনেতাদের প্রতিশ্রুতির বন্যা

সাধারণ শিক্ষার্থীদের মুখোমুখি ছাত্রনেতারা

প্রকাশ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯:১০

সাধারণ শিক্ষার্থীদের মুখোমুখি ছাত্রনেতারা
সাহেদুজ্জামান সাকিব, তিক

রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে ছাত্রনেতৃবৃন্দের কাছে সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা শীর্ষক আলোচনা 'খোলামত' অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় ছাত্র সংসদের সামনে তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির (সতিকসাস) এই আয়োজন করে। কয়েকশো সাধারণ শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে ঘন্টাব্যাপী এ অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু ছিলো - “আপনার জিজ্ঞাসা আপনার অধিকার”। তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদের সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক সমিতির উপদেষ্টা, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক কামাল হায়দার, সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রিপন মিয়া, ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক জুয়েল মোড়ল, তিতুমীর কলেজের বিতর্ক ক্লাবের সংগঠক ও বিতার্কিক জাবেদ ইকবাল, সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে মাহমুদা হক মনিরা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন ছিলো বাসের হাফ ভাড়া নিয়ে, বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট, ক্যান্টিন নেই কেনো, লাইব্রেরি সংস্করণ, মেয়েদের কমন রুম, ওয়াশরুম সমস্যা নিয়ে, মেডিকেল ক্যাম্প, ক্যাম্পাসের জায়গা বৃদ্ধি, বাসের দাবি, কলেজ ক্যাম্পাসে সুনির্দিষ্ট ডাস্টবিন ব্যবহার, নতুন হলের কাজ কবে শেষ হবে, বিভিন্ন সংগঠনের জন্য নিজস্ব কক্ষের ব্যবস্থা। মেয়েদের নামাজ পড়ার জায়গা তৈরি করা ইত্যাদি। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সাম্পদক জুয়েল মোড়লের কাছে বাসের হাফ ভাড়া নিয়ে অন্য কলেজ আন্দোলন করলেও তিতুমীর কলেজের আন্দোলন না করার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, গত এক বছর আগে আমরা হাফ ভাড়া নিয়ে আন্দোলন করেছি এবং কলেজের সামনে দিয়ে যে সকল বাস যায় তার মালিকদের সাথে ও গুলশান প্রসাশনের সাথে যোগাযোগ করে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া নিশ্চিত করেছি। যে কারণে এখন আমাদের আর আন্দোলন করতে হয় নাই। তবে সামনে যদি কোন আন্দোলন করতে হয় তাহলে অবশ্যই সেটা আমরা করবো। শিক্ষার্থীদের সকল যৌক্তিক দাবি ও আন্দোলনে সবসময় সাথে ছিলাম, আছি এবং ভবিৎষতেও থাকবো। শিক্ষার্থীদের দাবি নিয়ে সাব্বির আহমেদের আরেক প্রশ্নের জবাবে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া বলেন, সরকার শিক্ষার্থীদের সমস্যা নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যত দিন বেঁচে থাকবেন ততদিন শিক্ষার্থীদের কোন সমস্যা থাকবে না। তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগ সবসময় সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশে থাকবেন বলেও জানান তিনি। কলেজের শিক্ষার্থী মাহমুদা হক মনিরা জুয়েল মোড়লের কাছে খাবার পানির সমস্যা, মেডিকেল ক্যাম্প প্রতিষ্ঠা ও ছাত্রী হেনস্তা নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, কলেজের অধ্যক্ষের সাথে কথা বলে দ্রুতই খাবার পানির সমস্যা সমাধান করা হবে এবং কলেজে যে পুরাতন মেডিকেল ক্যাম্প রয়েছে যেটা বর্তমানে ব্যবহারিত হচ্ছে না। তবে সেটি পুনরায় চালু করার জন্যে অধ্যক্ষের কাছে আবেদন করেছি। আর ছাত্রী হেনস্তার বিষয়ে বিষয়ে তিনি বলেন, আমাদের কাছে এই ধরনের কোনো অভিযোগ আসলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিবো। জাভেদ ইকবল নামে এক শিক্ষার্থী রিপন মিয়ার কাছে কলেজের ছাত্র সংসদ নির্বাচন কবে হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ছাত্র সংসদ নির্বচন হওয়ার কথা ছিল কিন্তু করোনার জন্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সেটা সম্ভব হয় নাই। এ বিষয়ে আমরা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম। আশা করছি খুব দ্রুতই ছাত্র সংসদ নির্বাচন হবে। ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী সরওয়ার কলেজের লাইব্রেরী সমস্যা নিয়ে প্রশ্ন করলে জুয়েল মোড়ল বলেন, এ সমস্যা সমাধানের জন্যে কলেজের অধ্যক্ষের সাথে কথা হয়েছে এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছি। একই প্রশ্নে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রিপন মিয়া বলেন, লাইব্রেরি করার জন্যে খোলামতের মত অনুষ্ঠানই যথেষ্ট। কলেজের স্যারেরা শিক্ষার্থদের সাথে বন্ধুত্বসুলভ আচরণ করে না সরওয়ারের এমন অভিযোগের জবাবে রাষ্টবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক কামাল হায়দার বলেন, আমাদের কলেজে শিক্ষক ও ছাত্রদের সর্ম্পক মধুর যেটা দেশের অন্য কোন কলেজে নাই। কলেজের জায়গা বৃদ্ধির এক প্রশ্নের জবাবে রিপন বলেন, কলেজের পাশে রাজউকের জায়গায় বঙ্গবন্ধু পার্ক করার জন্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছিলাম তিনি এ বিষয়ে মত দিয়েছেন। ফজলে রাব্বি নামে এক শিক্ষার্থী কলেজে নতুন হলের কাজ কবে শেষ ও উদ্বোধন হবে জানতে চাইলে জুয়েল মোড়ল বলেন, আমাদের ইচ্ছা ছিল বিজয় দিবসের আগে উদ্বোধন করার। কিন্তু ঠিকাদার আরও কিছু দিন সময় চাইছে। আশা করছি শিগগিরি বাকি কাজ শেষ হয়ে যাবে। রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী আরাফত কলেজে ক্যান্টিন প্রতিষ্ঠার দাবি জানালে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরাও চাই দেশের সর্ববৃহত এই কলেজে ক্যান্টিন প্রতিষ্ঠা হোক। যার জন্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। প্রয়োজন হলে শিক্ষার্থদের নিয়ে মানববন্ধন করবো। কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের সমস্যা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, আমরা এই সমস্যা সমাধানের জন্যে কাজ করে যাচ্ছি। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে কলেজে আরও ৪ টি বাস যুক্ত হবে। প্রসঙ্গত, 'খোলামত' শিরোনামে ছাত্রনেতৃবৃন্দের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা শীর্ষক এমন অনুষ্ঠান তিতুমীর কলেজে এবারই প্রথম। পুরো অনুষ্ঠানটি তিতুমীর কলেজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। পরবর্তীতে এমন আরো আয়োজন করবে বলে জানায় তিতুমীর কলেজ সাংবাদিক সমিতি (সতিকসাস)।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত